আজ : ০৫:৪৪, অক্টোবর ১৫ , ২০১৯, ২৯ আশ্বিন, ১৪২৬
শিরোনাম :

সম্প্রীতি বাংলাদেশ’র আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা

বিশ্ববাংলানিউজ২৪

আপডেট:০৮:২৫, সেপ্টেম্বর ২৬ , ২০১৯
photo

দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা ও ধর্মনিরপেক্ষতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে গড়ে ওঠা সংগঠন 'সম্প্রীতি বাংলাদেশ'-এর জাতীয় আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। ৮৬ সদস্যের এই কমিটির আহ্বায়ক নাট্যব্যক্তিত্ব পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সদস্য সচিব হয়েছেন ডা. মামুন-আল মাহতাব (স্বপ্নীল)। গত মঙ্গলবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে সংবাদ সম্মেলনে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- যুগ্ম আহ্বায়ক সাংসদ অ্যারোমা দত্ত, মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আলি শিকদার, নাসির উদ্দিন আহমেদ, মেজর জেনারেল (অব.) জন গোমেজ ও ডা. উত্তম বডুয়া। কার্যনির্বাহী সদস্যরা হলেন- সাবেক রাষ্ট্রদূত এ কে এম আতিকুর রহমান, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ, অধ্যাপক আ ব ম ফারুক, অধ্যাপক অসীম সরকার, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক হারুন হাবীব, সাংবাদিক বরুণ ভৌমিক, শরীফ সাহাবুদ্দিন, শিশুসাহিত্যিক আলি হাবীব, ইসলামী চিন্তাবিদ মওলানা মিজবাউর রহমান, কর্নেল (অব.) সি কে দাস, ক্যাপ্টেন শাহাবুদ্দিন আহমেদ ও খ্রিষ্টান ধর্মযাজক রেভারেন্ড মার্টিন অধিকারী।

গতকাল সংগঠনটির ১২ সদস্যের উপদেষ্টা পরিষদের নামও ঘোষণা করা হয়। এতে রয়েছেন শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী, অধ্যাপক আবদুল মান্নান, অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, সাংসদ শফিকুর রহমান, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান, অধ্যাপক কামরুল হাসান খান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, শুদ্ধানন্দ মহাথেরো, মওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ, মাহফুজা খানম ও খাইরুল মজিদ মাহমুদ।

লিখিত বক্তব্যে পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এই সংগঠনের পক্ষে গত ২ জুলাই থেকে 'শতবর্ষের পথে বঙ্গবন্ধু ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ' শীর্ষক বছরব্যাপী কর্মসূচি শুরু হয়েছে। এর অংশ হিসেবে দেশের কয়েকটি জেলার স্কুল ও কলেজে নাগরিক পর্যায়ে সমাবেশ করা হয়েছে। এ সময় তিনি আগামীতে দেশের সব জেলা শহরে এই কর্মসূচি পরিচালনা করা হবে বলে জানান।



সাম্প্রতিক খবর

হিজড়াদের চাঁদাবাজি মধ্যরাতে বিভিন্ন স্পটে বসে দেহব্যবসা

photo ওসমানীনগর (সিলেট)প্রতিনিধিঃসিলেটের ওসমানীনগরে হিজড়াদের ওপেন দেহ ব্যবসা ও বখশিসের নামে বেপরোয়া চাঁদাবাজির কারণে অতিষ্ট হয়ে পেরেছেন এলাকাবাসী। প্রতি দিন মধ্য রাতে উপজেলার গোয়ালাবাজার, তাজপুরবাজার সহ বিভিন্ন বাজারে বসে দেহব্যবসায়ী হিজড়াদের ভাসমান হাট। হিেিসবে উটতি বয়সী ছেলে স্কুল কলেজ পড়–য়া ছাত্র যুবক সহ বিভিন্ন বয়সী পুরুষদের খদ্দের হিসেবে ব্যবহার করছে হিজড়ারা।

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment