আজ : ০৪:৫৩, অক্টোবর ১৫ , ২০১৯, ২৯ আশ্বিন, ১৪২৬
শিরোনাম :

জৈন্তাপুরে নারীসহ মানব পাচারকারী আটক

বিশ্ববাংলানিউজ২৪

আপডেট:১১:২৯, অক্টোবর ৪ , ২০১৯
photo


জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধিঃ
সিলেট জৈন্তাপুর উপজেলা হতে নারী সহ মানব পাচারকারী আটক করেছে থানা পুলিশ। তাদেরকে মানব পাচার আইনে মামলা দায়ের পূর্বক আদালতে প্রেরণ করেছে।
অভিযোগ সূত্রে ঝানা যায়, মানব পাচারকারী দলের সদস্যরা বিবাদীর পূর্ব পরিচিত, বিবাদী কুলছুমা বেগমকে বিদেশে ভাল বেতনে কাজ পাইয়ে দেওয়া জন্য কৌশলে রাজি করে। ২৬ জানুয়ারী তারিখ বিকাল ৬টার সময় বাড়ী বাহির হয়। পরবর্তীতে ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ তারিখ দিলারা বেগম(৪০) বিদেশে যাওয়ার ব্যবস্থা করিয়া দেয়। বিদেশে যাওয়ার পর দিলারা বেগমের লোক আমাকে এয়াপোর্ট হতে নিয়ে সেখানে একটি বাসায় রাখে। ঐ বাসার মালিক সহ তাহার ছেলে আমার সাথে খারাপ ব্যবহার সহ শারিরিক নির্যাতন শুরু করে। এক পর্যায় তারা বলে টাকা দিয়ে আমাকে কিনে এনেছে তারা যা খুশি তাই করতে পারবে। তাদের নির্যাতন সহ্য করতে না পারলে ঐ বাসার মালিক আমাকে অন্য বাসায় দিয়ে আসে। সেখানেও একই অবস্থায় আমার উপর নির্যাতন চলে। আমি তাদের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে পালিয়ে যাই। সেদেশের পুলিশ আমাকে উদ্ধার করে এম্বেসিতে নিয়ে আসে। এম্বেসির অফিসার আমার বিষয় অবগত হয়ে আমাকে সেইভ হাউসে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে সেইভ হাউসের মাধ্যমে আমি দেশে ফেরত আসি।
এঘটনায় কুলছুমা বেগম বাদী হয়ে ২ অক্টোবর জৈন্তাপুর থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করলে পুলিশ তদন্ত সাপেক্ষে ২০১২ সনের পাচার ও প্রতিরোধ আইনের ৬,৭,৮ ধারায় মামলা রেকর্ড করে (যাহার নং-০৪, তারিখঃ ০২-১০-২০১৯ ইংরেজী)। মামলা রেকর্ডের পর মোবাইল ট্যাকিংয়ের মাধ্যমে ২ অক্টোবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এস.আই আজিজুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান করে জৈন্তাপুর উপজেলার শুক্রবারী বাজার হতে মানব পাচারকারী চক্রের সদস্য সিলেট জেলার বালাগঞ্জ থানার মৈশাশী গ্রামের জসিম উদ্দিনের স্ত্রী দিলারা বেগম(৪০) তার স্বামী মৈশাশী গ্রামের জসিম উদ্দিন(৪৮) কে আটক করা হয়।
জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যামল বনিক বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে প্রতিবেদককে বলেন, মানব পাচারকারীরা কৌশলে প্রত্যান্ত অঞ্চলের গরীব অসহায় নারীদের বিদেশে ভাল বেতনে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে তারা নারী পাচার করে আসছে। তাদেরকে ৩ অক্টোবর মামলা দায়ের পূর্বক আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Posted in সিলেট


সাম্প্রতিক খবর

হিজড়াদের চাঁদাবাজি মধ্যরাতে বিভিন্ন স্পটে বসে দেহব্যবসা

photo ওসমানীনগর (সিলেট)প্রতিনিধিঃসিলেটের ওসমানীনগরে হিজড়াদের ওপেন দেহ ব্যবসা ও বখশিসের নামে বেপরোয়া চাঁদাবাজির কারণে অতিষ্ট হয়ে পেরেছেন এলাকাবাসী। প্রতি দিন মধ্য রাতে উপজেলার গোয়ালাবাজার, তাজপুরবাজার সহ বিভিন্ন বাজারে বসে দেহব্যবসায়ী হিজড়াদের ভাসমান হাট। হিেিসবে উটতি বয়সী ছেলে স্কুল কলেজ পড়–য়া ছাত্র যুবক সহ বিভিন্ন বয়সী পুরুষদের খদ্দের হিসেবে ব্যবহার করছে হিজড়ারা।

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment